Sunday, July 12, 2020

সিঙ্গাপুর প্রধানমন্ত্রীর আরো ১৫০ মসজিদ নির্মানের ঘোষনা

Be the first to comment!
দিন দিন সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী মিস্টার লি সিয়েন লুং প্রবাসী বাংলাদেশীদের কাছে খুব বেশি জনপ্রিয় হয়ে উঠছেন। গত দশে জুলাই সিঙ্গাপুরে আবারও নির্বাচন হয়ে গেল। ২০২০ সালের ১০ জুলাই সিঙ্গাপুরের নির্বাচনে আবারো নির্বাচিত হয়েছেন গত বারের প্রধানমন্ত্রী মিস্টার লি সিয়েন লুং। সিঙ্গাপুরের নির্বাচনকে ঘিরে বাংলাদেশি প্রবাসীদের মধ্যে একপ্রকার আনন্দ বিরাজ করছিল। একদিকে করো না ঘর বন্দী হয়ে থেকে নিরিবিলি ইন্টারনেটের মাধ্যমে ভোট কেন্দ্র ভোটের খবর বাসায় বসেই পাচ্ছিলেন সকল মানুষেরা। তারমধ্যে প্রিয় ব্যক্তিদের ভোটের লড়াই করে জেতা সবমিলে বাংলাদেশী প্রবাসী ভাইদের মধ্যে উৎসবমুখর পরিবেশ দেখা গেছে।

পাশাপাশি প্রবাসী বাংলাদেশীরা সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রীকে মন থেকেই দোয়া করেন। কারণ এই করনা ভাইরাসের মহামারীর সময় সিঙ্গাপুরে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য সম্পূর্ণ বিনে পয়সায় তিনবেলা নিয়মমাফিক খাবার দিয়ে যাচ্ছেন এবং পাশাপাশি বেতন দিয়ে যাচ্ছেন সে দেশের সরকার।

এমন সরকারকে যে কেউ বিনা বাধায় বিনাদ্বিধায় ভোট দিতে প্রস্তুত। তাইতো আবারো জনগণের রায় প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসলেন চাইনিজ বংশধর মিস্টার লি সিয়েন লুং। সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী অতীতে দেখা গেছে তিনি খুব সাধারণ জীবন যাপন করতেন। বিশেষ করে প্রবাসী বাংলাদেশীদের কে ভালোবেসে কাছে টেনে নিতেন। সকল ধরনের সুযোগ-সুবিধা প্রবাসী বাংলাদেশীদের কে দিয়ে সিঙ্গাপুরে প্রতিষ্ঠা করেছিল প্রকৃত গণতন্ত্র। যেখানে সুইপার থেকে আরেকজন কোটিপতি পর্যন্ত সমান অধিকার নিশ্চিত করে চলেছেন এই প্রধানমন্ত্রী।

শুধু সিঙ্গাপুরে নয় বাংলাদেশেও সমানতালে জনপ্রিয়তার কুড়াচ্ছেন এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ লি সিয়েন লুং। পাশাপাশি পুরো বিশ্বে খুব দ্রুত কুড়িয়েছেন শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য অনেক দোয়া ও শুভকামনা। যার প্রেক্ষাপটে দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হলেন। মানুষের প্রকৃত অধিকার প্রতিষ্ঠায় প্রতিনিয়ত কাজ করে চলেছেন এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ। বাংলাদেশি একজন প্রবাসী কাছ থেকে জানা যায় যে, এই করণার সময় সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হচ্ছে নিয়ম করে তিন বেলা খাবার, চা-কফি, হাত ধোয়ার জন্য উন্নত, হ্যান্ড স্যানিটাইজার।

গামছা তোয়ালে, এমনকি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকার জন্য প্রবাসী বাংলাদেশীদের কে দেওয়া হচ্ছে জিলেট ব্লেড, সিঙ্গাপুর যেহেতু সবসময়ই এক ঋতু থাকে ঠান্ডার ভাবটা সব সময় অনুভব করা যায় রাতের বেলা। সেতু রাতে ঘুমানোর জন্য দেওয়া হয়েছে কম্বল উন্নত মানের ঘুমানোর বেড। গতবার নির্বাচনের আগে সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী ইশতেহারে ঘোষণা করেছিলেন ৭৫ টা মসজিদকে এই নির্বাচিত হতে পারেন এমন করে বিষয়টা মসজিদ বানানো হবে এবার ইশতেহারে ছিল দেড়শ টি মসজিদ কে ৩০০টি মসজিদে রূপান্তর করা হবে যদি নির্বাচনে জয়ী হতে পারেন। যে দেশে কোন ধর্মের মানুষকে অবহেলা না করে সকল ধর্মের মানুষকে সমান অধিকার আদায়ে সর্বদা সচেষ্ট এই প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও প্রধানমন্ত্রীর মিস্টার লি সিয়েন লুং।

গতবারের নির্বাচিত হবার পর থেকে তিনি তার সকল ইস্তেহার সম্পন্ন পূরণ করে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন মুসলিম হিন্দু খ্রিস্টান বৌদ্ধ সহ সকল ধর্মের মানুষের কাছে। তাইতো তিনি আরো ব্যাপকভাবে ভরতে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত। যেখানে আইনের ব্যবহার সবার জন্য সমান নিশ্চিত করা হয়েছে।
  • 0Blogger Comment
  • Facebook Comment

Post a Comment